সাধারন মানুষের দরজায় অফিস করলেন শিবচর থানার ওসি

0
74

মাদারীপুরের শিবচরে জনতার পুলিশ ব্যানারে প্রত্যন্ত অঞচলের সাধারন মানুষের ঘরের দরজায় অফিস স্থাপন করে তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা প্রদান করা হয়। মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার দক্ষিন বহেরাতলা ইউনিয়নের কলাতলা এলাকায় এ সেবা প্রদান করেন শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ ও সহকারী পুলিশ সুপার (শিক্ষা নবীশ) মো: ইব্রাহিম।
পুলিশি সেবার মধ্যে ছিল তাৎক্ষনিক জিডি, অভিযোগ ও মামলা করার ব্যবস্থা।

চর কামারকান্দী এলাকার দবির উদ্দিন ফকিরের ছেলে সোহাগ এলাকায় বসে একটি জিডি করেন। জিডি নং ২১৭, তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৯। জিডিতে সোহাগ অভিযোগ করেন ১০ জুলাই ২০১৫ সালে একই এলাকার মৃত আজিজ খানের ছেলে মো: লাল চাঁন খাঁন তাকে সৌদি আরব নেওয়ার কথা বলে ৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা নেয়। আজ দিব কাল দিব বলিয়া তালবাহানা করে ৫ বছর ঘুরায়। সোহাগের জিডি ভিত্তিতে তাৎক্ষনিক শিবচর থানা পুলিশ লাল চাঁন খাঁনকে আটক করে।

কলাতলা এলাকার দবির খালাসীর ছেলে শাহাদাত হোসেনের এইচ.এস.সি সার্টিফিকেটে তার নাম,ঠিকানা সঠিক কিন্তু জাতীয় পরিচয় পত্রে নাম শাহাদাত হোসেন এর পরিবর্তে মো: শাহাদাত হোসেন হয়েছে। জাতীয় পরিচয় পত্রে তার নাম পরিবর্তন করা প্রয়োজন বলে তিনি এলাকায় বসে জিডি করেন। জিডি নং ২২০, তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৯, শিবচর থানা। এছাড়াও এলাকাবাসী আরো কয়কটি অভিযোগ করেন।

তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা পেয়ে সোহাগ ও শাহাদাত হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, আগে টাকা-পয়সা দিয়ে দালাল ধরে থানায় গিয়ে সেবা নিতে হতো। এখন দেখছি পুলিশি আমাদের সেবা দেওয়ার জন্য ঘরের দরজায় অফিস স্থাপন করেছে। তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা পেয়ে আমরা খুব আনন্দিত।

দক্ষিন বহেরাতলা ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আ: লতিফ মুন্সী বলেন, বিগতদিনে মানুষ থানায় গিয়ে তেমন সেবা পেতনা বলে শুনে আসতাম। এখন দেখছি জনতার পুলিশ ব্যানারে প্রত্যন্ত অঞচলের সাধারন মানুষের ঘরের দরজায় অফিস স্থাপন করে তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা প্রদান করছে। এটা সম্ভব হয়েছে একমাত্র শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ স্যারের জন্য। তিনি যোগদানের পর থেকে শুনে আসছি থানায় জিডি, অভিযোগ, মামলা ও পুলিশ ক্লিয়ারন্সেস নিতে কোন টাকা লাগে না।

ডা: ইউনুস ফরাজী বলেন, জনতার পুলিশ ব্যানারে প্রত্যন্ত অঞচলের সাধারন মানুষের ঘরের দরজায় অফিস স্থাপন করে তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা প্রদান করায় নীরহ ও হতদরিদ্র মানুষের অনেক উপকার হচেছ। আমি ছাত্র-ছাত্রীদের মুখে শুনেছি শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ নাকি প্রতিটি স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় গিয়ে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধী সমাবেশ করছেন। এটা তার একটি মহৎ উদ্যোগ।

জনগনের সেবায় নিয়োজিত থাকতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করেন শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকারের লক্ষ্যকে বাস্তবায়িত করা ও মানবিক পুলিশিং এর অংশ হিসাবে নতুন কার্যক্রমের অংশ হিসাবে জনতার পুলিশ ব্যানারে সাধারন মানুষের ঘরের দরজায় অফিস স্থাপন করে তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা প্রদান করা হচেছ। এভিন্ন কোন কার্যক্রম না। জনগনের নিরাপত্তা প্রদান করা আমার মুল লক্ষ্য ও পবিত্র দায়িত্ব। প্রত্যন্ত অঞচলের মানুষ থানা পুলিশকে যেন ভয়ের দৃষ্টিতে না দেখে তাই আমি গ্রামের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর দরজায় গিয়ে জিজ্ঞাসা করি তাদের কোন সমস্যা আছে কিনা। যদি কোন সমস্যা থাকে তাহলে তাদের অভিযোগ লিপিবদ্ধ করি এবং আইনী কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহন করি।

আজ এলাকায় বসে তাৎক্ষনিক পুলিশি সেবা হিসাবে চরকামারকান্দী এলাকার দবির উদ্দিন ফকিরের ছেলে সোহাগের একটি জিডির ভিত্তিতে মো: লাল চাঁন খাঁনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here