ভালো থাকিস তোরা,,

0
41

ছাত্রজীবন থেকেই মনে প্রানে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে মিশে গিয়েছিলাম। সেই দিনটাই ছিল খুব মধুর সময়। তখন ছিলনা কারও সাথে কোন হিংসা-অহংকার। ছিলনা কোন বিবাদ। তখন মনে সব সময় একটা বিষয় কাজ করত তা হলো ভালো একটি গল্প, কবিতা লেখার বা কোন নাট্য মঞ্চে অভিনয় করার নেশা। অভিনয় শিখতে চলে যেতাম শিল্পকলা একাডেমীতে। নাট্য মঞ্চে অভিনয় করার জন্য পাগলের মত ছুটে যেতাম বিভিন্ন এলাকায়। তারপর নাম লেখালাম বন্ধুসভায়, উদিচিতে। সেখানে বিভিন্ন সভা-সমাবেশ করে দিনগুলো কেটে যেত অনেক হাসি আনন্দে। আবার অনেক সময় কলেজ হোস্টেলে সবাই মিলে গল্প করে রাত কাটানো সোনালী মুহুর্তো। সেখান থেকে ধীরে-ধীরে বন্ধু সার্কেল কর্মের কারনে এক এক জনে এক এক দিকে চলে গেল। ভেঙ্গে গেল বন্ধু সার্কেল। এরপর কারো সাথে কারো দেখা খুব কম হত। এভাবে ধীর ধীরে সকলের সাথে সকলের বন্ধন ছিন্ন হয়ে গেল। কিন্তু এখন মন চাইলে কেউ আর এক সাথে হতে পারিনা। কোথায় সেই সালাহউদ্দিন কোথায় সেই মামুন, নেয়ামুল। কারও খবর রাখার সময় যেন কারো হাতে নেই। রোজ বিকালে কলেজ মাঠের সেই রং মাখানো আড্ডাটার কথা খুবই আজ মনকে কাদায়। তবে একটা কথা বলবো তোরা যে যেখানে থাকিস ভালো থাকিস।

লেখক,
এইচ এম মিলন
সাংবাদিক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here