মাদারীপুরে জমি নিয়ে বিরোধ, এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম

0
1

মাদারীপুরে জমি নিয়ে বিরোধ, এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম

মাদারীপুর প্রতিনিধি
মাদারীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে জাকির হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গুরুতর অবস্থায় জাকিরকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। গত মঙ্গলবার বিকেলে ডাসার থানার পশ্চিম বালিগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
এদিকে হামলার ঘটনার একদিন পরেই জাকিরের স্ত্রী ফারজানা বেগম বাদী হয়ে ডাসার থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলায় এনায়েত চৌকিদার, ইউসূফ আলী ও ইউনূছ আলী চৌকিদারসহ অজ্ঞাত ৫-৭ জনকে আসামি করে একটি মামলা করা হয়। এই ঘটনায় উল্টো প্রতিপক্ষের লোকজন থানায় আরও একটি মামলা করেছেন। হামলায় গুরতর আহত জাকিরকে স্ত্রী ফারজানাকে হয়রানি করতে প্রতিপক্ষ অন্যতম আসামি ইউনূছ চৌকিদারের স্ত্রী শেপালী বেগম বাদি হয়ে ফারজানাসহ তার স্বাজনদের আসামি করে একটি মামলা করেন। যদিও এই মামলাটি হয়রানির উদ্দেশ্যে করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন গুরতর আহত জাকিরের স্ত্রী ফারজানা বেগম।
হাসপাতালে ফারজানা বেগম অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার স্বামীকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে আহত করে এনায়েত, ইউসূফ ও ইউনূচসহ আরও কয়েকজন সন্ত্রাসী। হামলাকারীরা আমার গলার একটি এক ভরি ওজনের সোনার চেন নিয়ে যায়।’ তিনি আরও জানান, ‘হামলার সময় আমার স্বামী ও স্বজনদের সাথে আসামিদের ধস্তাধস্তি হয়। আসামিরা ওই দিন হাসপাতালে ভর্তি হলেও তারা আবার ওই দিনই হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি চলে যায়। তারাই আবার মিথ্যে মামলা দেয়। এমনকি ঘটনার তিনদিন পরে ১৮ তারিখ রোগী সেঁজে আবারও হাসপাতালে ভর্তি হয়। এসবই হাসপাতালের রেজিস্টারে উল্লেখ আছে।’
হাসপাতালের রেজিস্টারে গিয়ে অভিযোগের বিষয় খোঁজ নেওয়া হলে তার সত্যতা পাওয়া যায়। রোগী সেঁজে আসা রোগীদের কেবিনে গিয়ে দেখা যায় তারা কেউই গুরুতর আহত নয়। তবুও হাসপাতালের শয্যা দখল করে আছেন। এ সম্পর্কে হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক বলেন, ‘এনায়েত, ইউনুচ ও ইউসূফদের ছোট খাটো ইনজুরি ছিল। তারা চাইলে বাসায় বসেই চিকিৎসা নিতে পারেন। তবে জাকির হোসেন মাথায় আঘাতটা গুরতর। তার মাথায় অনেকগুলো সেলাই করতে হয়েছে। তাই তাকে আরও কয়েকদিন ভর্তি থাকতে হবে। তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন।’
পুলিশ ও মামলার সূত্র জানায়, পশ্চিম বালিগ্রাম এলাকায় জাহির হোসেন সাথে এনায়েত চৌকিদারের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ ছিল। এই বিরোধের জের ধরে গত মঙ্গলবার বিকেলে দেশী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে জাকিরের উপর হামলা করে এনায়েত ও তার লোকজন। হামলায় গুরতর আহত হন জাকির হোসেন। পরে জাকিরের স্বজনরা বাঁধা দিতে এলে হামলাকারীদের সাথে তাদের সংঘর্ষ বাঁধে। এতে উভয় পক্ষের বেশ ককেজন আহত হন। আহতরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিলেও গুরুতর অবস্থায় জাকিরকে ভর্তি করা হয়।
এ সম্পর্কে জানতে চাইলে এনায়েত চৌকিদার বলেন, ‘জাকির তার লোকজন নিয়ে আমাদের উপর হামলা করতে এসে নিজে আহত হন। তাদের হামলায় আমাদের অনেকে আহত হয়েছেন। আমরা এ ঘটনায় বিচার চেয়ে রব চৌকিদারসহ ৭ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছি।’
জানতে চাইলে ডাসার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব বলেন, ‘জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরেই জাকিরের সাথে এনায়েতের সংঘর্ষ হয়। হামলায় জাকির মাথায় গুরুতর জখম হয়েছে। এই ঘটনায় দুই পক্ষেই আমাদের কাছে আলাদা অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে