গৌরনদীতে প্রতিবন্ধী কিশোরীর শ্লীলতাহানি ঘটনায় মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার-১

0
2

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশালের গৌরনদী উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নের পশ্চিম শাওড়া গ্রামের এক বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৪) শ্লীলতাহানি ও স্পর্শকাত স্থানে হাত দিয়ে টেনে হেচরে বাগানে নেওয়ার চেষ্টার ঘটনায় কিশোরীর মা বাদি হয়ে গৌরনদী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ঘটনায় জড়িত এজাহার নামীয় আসামিকে (১৭) গ্রেপ্তার করে শনিবার শিশু আদালতের মাধ্যমে সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গৌরনদী উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নের পশ্চিম শাওড়া গ্রামের এক বাক প্রতিবন্ধী কিশোরী ও পশ্চিম শাওড়া আলীম মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেনির ছাত্রীকে (১৪) একই গ্রামের এক কিশোর (১৭) কু প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করে আসছিল। গত ১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বখাটের বসত ঘর সংলগ্ন গভীর নলকুপ থেকে কিশোরী কলসীতে পানি নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে গ্রামের কাসেম মোল্লার বাগানের কাছে পৌছলে বখাটে কিশোরীর পানির কলসী ফেলে দিয়ে টেনে হেচরে বাগানে নিয়ে স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানি ঘটায় । এ সময় প্রতিবন্ধী কিশোরীর ধস্তাধস্তির শব্দ কান্নাকাটির শব্দ পেয়ে পথচারীরা এগিয়ে গলে বখাটে পালিয়ে যায়। শিশু আইনের আওতায় থাকার কারনে কিশোরের নাম পরিচয় উল্লেখ করা হয়নি ।

কিশোরীর মা অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় লোকজন আমার মেয়েকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌছে দেয়ার পরে আমি বিখাটে বায়েজিদের বাড়িতে গিয়ে বখাটের মা ও বাবাকে জানিয়ে বিচার দাবি করি। এ সময় বখাটে ও তার বাবা মাইনুদ্দিন মোল্লা (৪৫) মা মিনু বেগম (৩৮) আমাকে লাঠিপেটা করে রক্তাক্ত জখম করেছে। খবর পেয়ে স্বজনরা আমাকে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি) মোঃ তৌহিদুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদি হয়ে বখাটে বখাটে (১৭) তার বাবা মাইনুদ্দিন মোল্লা (৪৫) মা মিনু বেগমকে আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করে শনিবার শিশু আদালতের মাধ্যমে সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে