মুদির আড়ালে গাঁজার রমরমা ব্যবসা, অতঃপর

0
2

মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় সোনাহর আলীকে (৪৫) গাঁজাসহ গ্রেফতার করেছে বড়লেখা পুলিশ। আসন্ন ইউপি নির্বাচনের সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থী সোনাহর আলী মূলত মুদি ব্যবসার আড়ালে গাঁজার রমরমা ব্যবসা করতেন।তিনি উপজেলার দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউপির পশ্চিম দক্ষিনভাগ গ্রামের মৃত অজই আলীর ছেলে।

সোমবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে উপজেলার দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউপির পশ্চিম দক্ষিনভাগ গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়ে।মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোনাহর আলী দীর্ঘদিন থেকে নিজ বাড়িতে মুদি ব্যবসার আড়ালে গাঁজার রমরমা ব্যবসা করে আসছেন। উপজেলার সকলের কাছে তিনি একজন চিহ্নিত গাঁজা ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে ৬টি মাদকের মামলা বিচারাধীন।বেশকয়েকবার ভ্রাম্যমাণ আদালত ও থানা পুলিশ মাদকসহ তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। কিন্ত জেল থেকে বের হয়ে আবার গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদকের ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি।

এলাকাবাসীরা আরোও জানান, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সোনাহর আলী মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে এলাকায় ব্যানার, ফেস্টুন লাগিয়ে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।

সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বড়লেখা থানার এসআই সুব্রত কুমার দাসের নেতৃত্বে পুলিশ সোনাহর আলীর মুদি দোকানে অভিযান চালায়। এসময় ২১০ গ্রাম গাঁজাসহ তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, সোনাহর আলী চিহ্নিত গাঁজা ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে থানায় ৬টি মামলা রয়েছে। আদালত থেকে জামিন নিয়ে বেরিয়ে তিনি মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে